সাম্প্রতিক:

শিশুর জীবন বাঁচালো ‘ক্যামেরা’ !

Camera Safe kid’s Life শিশুর জীবন বাঁচালো ‘ক্যামেরা’অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি যে চার মাসের এক শিশুর জীবন বাঁচিয়েছে ক্যমেরার ফ্ল্যাশ। শিশুটির মা তার ছবি তোলার পর শিশুটির চোখে একটি সাদা কিছু দেখতে পায়।

সংবাদে বলা হয়েছে ফোনের ক্যামেরাটি নষ্ট থাকার কারণে এমন হয়েছে বলে বলে ধারনা করেছিলেন শিশুটির মা। এ বিষয়টিকে যাচাই করার জন্য নতুন ক্যামেরা দিয়ে শিশুটির ছবি তুলেন তখন তিনি শিশুটির চোখে সাদা দীপ্তি দেখতে পান। মা বিষয়টিকে স্বাভাবিক মনে না করে দ্রুত ডাক্তারের কাছে নিয়ে যান। ডাক্তার পরীক্ষা করে দেখেন যে শিশুটির চোখে টিউমার হয়েছে। এই কারণে ক্যামেরার ফ্লাসের আলো চোখে প্রতিফলিত হয়ে সাদা কিছু তৈরি করেছে।

দ্রুত রোগ শনাক্ত করার পর দেরি না করে শিশুটিকে একটি বড় ক্যান্সার হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়া হয়। ডাক্তাররা পরীক্ষা করে জানতে পারেন যে শরীরের অন্য কোথাও ক্যান্সার ছড়িয়ে পরেনি।

মায়ের বুদ্ধির জন্য আজ এ শিশুটি বেঁচে গেল। মা যদি বুঝতে না পারত তবে অকালে ঝড়ে যেত কোমলমতি একটি প্রান। ছোট এ শিশুটির নাম ছিল রাইডার।

রোগটির নাম রেটিনোব্ল্যাস্টোমা, এই রোগটি সাধারণত দেখা যায় না। এটি একটি বিরল রোগ। গত বছর অনেক শিশুর চোখে এ রোগটি ধরা পরেছে, তাদের মধ্যে প্রায় ৫০ ভাগ শিশু মারা গেছে, বললেন একজন মার্কিন ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ।