Wednesday, May 29, 2024
প্রচ্ছদলাইফ স্টাইলকনসিলার দিয়ে ঢেকে ফেলুন চোখের নিচের কালো দাগ ও মুখের দাগ

কনসিলার দিয়ে ঢেকে ফেলুন চোখের নিচের কালো দাগ ও মুখের দাগ

চোখের নিচের কালো দাগ বা মুখের দাগের জন্য কোন মেক-আপই করতে পারছেন না। শুধু  ফাউনডেশন দিয়ে কোনভাবেই ঢাকতে পারছেন না দাগ গুলো। সাজলেই মুখের উপর দাগ গুলো যেন ভেসে থাকে। অনেক সময় অনেক পার্টিতে গিয়ে বহু বিড়ম্বনার সম্মুখীন হয়েছেন।এখন শুধু মনে হয় যেন কোথাও কোন অনুষ্ঠানে না যাওয়াই ভাল।এত হতাশ হওয়ার কিছু নেই।আপনার সমস্যার সমাধান দিতেই আমাদের এই লেখাটি।

কনসিলার মেকআপের একটি বেসিক ধাপ। কনসিলার ব্যবহার করে আপনি আপনার মুখের দাগ, ব্রণ, চোখের নিচে ডার্ক শেড, মুখের ক্লান্তি দূর করতে পারবেন।

আপনার জন্য বাছাই করুন যথাযথ কনসিলারঃ

Acne Concealer কনসিলার আপনার ত্বকের স্বাভাবিক রঙের সাথে আপনার ফাউন্ডেশনের রঙ মিলিয়ে নিতে চাইলে আপনার ত্বকের রঙের থেকে ১/২ শেড হালকা রঙের কনসিলার বাছাই করুন। কনসিলার আপনি বিভিন্ন আকৃতির পেতে পারেন। এক এক আকৃতির কনসিলার লাগানোর সুবিধা ভিন্ন। যেমন ব্রণ ঢাকার জন্য পেন্সিল কনসিলার ব্যববার করা সবচেয়ে ভাল। কারণ এর চোখা অংশ দিয়ে নির্দিষ্ট ভাবে ব্রণের দাগের অংশে কনসিলার লাগানো যায়। হলদে বা সবুজ রঙের কনসিলার সব ধরনের ত্বককে আকর্ষণীয় করে তুলে। শ্যামলা বা তার থেকে গাঢ় রঙের ত্বকের জন্য কমলা ভাব থাকে এমন  কনসিলার ব্যববার করা উচিত। আপনার ত্বকের রঙের সাথে কনসিলার মানানসই হবে নাকি হবে না তা পরীক্ষা করে দেখতে কানের নিচ বরাবর গলায় লাগিয়ে দেখুন। মনে রাখবেন আপনার ফাউন্ডেশন এর রঙ থেকে কনসিলারের রঙ ১/২ শেড হালকা হবে। যদি চোখের নিচের শিরা ঢাকতে কনসিলার ব্যবহার করতে চান তাহলে আপনার হাতের কব্জির যে শিরা আছে তার উপরে কনসিলার লাগিয়ে পরীক্ষা করে দেখুন। যদি দেখা যায় আপনার হাতের শিরা ঢেকে যাচ্ছে তাহলে সেটিই হবে আপনার জন্য যথাযথ কনসিলার। বিভিন্ন ধরণের  কনসিলার আছে যা বিভিন্ন ধরণের দাগ ঢাকে। জেনে নিন এসব কনসিলার সম্পর্কেঃ

আন্ডার-আই(Under-eye)কনসিলার: চোখের নিচের কালো দাগ ঢাকার জন্য আন্ডার-আই কনসিলার ব্যবহার করা হয়। এটি মুখের লাল দাগ বা অন্যান্য দাগ ও ঢাকবে ।

ইয়োলো-টোনড(Yellow-toned)কনসিলার: মুখের ত্বকের বিভিন্ন দাগ ঢাকতে এই কনসিলার ব্যবহার করা হয়। হলদে ভাবের কারণে এটি সব ধরণের ত্বকের সাথে মানিয়ে যায়।

কারেক্টর(Corrector): চোখের নিচের কালো দাগ যদি গাঢ় হয় তাহলে এই কনসিলার লাগাতে হয়। পিচ বা গোলাপি শেডের কারেক্টর সবচেয়ে ভালো।

হেবি ডিউটি(Heavy duty)কনসিলার: ত্বকের পুড়ে যাওয়া দাগ বা কোন গাঢ় দাগ দূর করে এই কনসিলার।

বডি(Body)কনসিলার: হাত ও পায়ের দাগ ঢাকার জন্য বডি কনসিলার ব্যবহার করা হয়। বিশেষ করে হাত ও পায়ের শিরা ঢাকতে এটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ।

কনসিলার যেভাবে লাগাবেনঃ

  • ফেস-ওয়াস দিয়ে খুব সুন্দর ভাবে মুখ ধুয়ে ফেলুন। মেকআপ লাগানো থাকলে তুলে ফেলুন মুখ ধোয়ার আগেই। মাশকারা বা কাজল লাগানো থাকলে তুলায় সামান্য তেল নিয়ে আলতোভাবে ঘষে তুলে ফেলুন। এবার মুখে সামান্য ময়শ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।
  • চোখের নিচে কনসিলার সটীকটি দিয়ে কয়েককি ডট দিয়ে নিন প্রথমে। আঙ্গুল দিয়ে হালকা করে ডট গুলো লেপে নিন। আঙ্গুল দিয়ে চাপ দিয়ে কনসিলার মিশিয়ে নিবেন। মনে রাখবেন কনসিলার কখনো ঘষা যাবে না। দরকার হলে কনসিলার ব্রাশ ব্যবহার করুন।
  • এবার মুখের উপরে যেখানে যেখানে দাগ ও ব্রণ রয়েছে সেখানে কনসিলার লাগিয়ে নিন। আগের মতই আঙ্গুল দিয়ে হালকা চাপ নিয়ে কনসিলার মিশিয়ে নিন ভালো করেনা।
  • যদি এখনো আপনার মনে হয় দাগ ভালো করে ঢাকেনি তাহলে আরেকটি কনসিলারের আরেকটি স্তর দিতে পারেন দাগের উপর।
  • এবার ফাউন্ডেশন লাগিয়ে নিন। এক্ষেত্রে আপনি পাউডার ফাউনডেশন ব্যবহার করুন। পাউডার ফাউন্ডেশন ব্রাশ দিয়ে মিশিয়ে নিন। খেয়াল রাখবেন আপনি কনসিলার যেখানে যেখানে দিয়েছেন সব জায়গায় যেন ফাউন্ডেশন লাগে। ফাউনডেশন ব্যাবহার না করতে চাইলে আপনি কম্প্যাক্ট পাউডার লাগাতে পারেন। এবার আপনার কনসিলারের কাজ শেষ। এরপর মেকআপের বাকি কাজ গুলো সেরে নিন। ব্রোঞ্জার, ব্লাশ, লিপস্কিক, আই-শ্যাডো, আই-লাইনার, কাজল, মাশকারা ঠিকঠাক ভাবে লাগিয়ে নিন।

ব্যাস হয়ে গেল আপনার মুখের দাগের সমাধান। আয়নার দিকে তাকিয়ে দেখুন আপনিই আপনাকে চিনতে পারেন কিনা!

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

জনপ্রিয় পোস্ট

- Advertisment -OBSZONE - free classified ads website

সাম্প্রতিক মন্তব্য